Golden Bangladesh
Eminent People - ড. রংগলাল সেন

Pictureড. রংগলাল সেন
Nameড. রংগলাল সেন
DistrictMaulvibazar
ThanaNot set
Address
Phone
Mobile
Email
Website
Eminent Typeসমাজবিজ্ঞান
Life Style

১৯৪০ সালে মৌলভীবাজার মহকুমার সদর থানার বাসুদেবশ্রী মধ্যবঙ্গ স্কুলে (বর্তমানে প্রাথমিক স্কুল) . রংগলাল সেন প্রথম শ্রেণীর ছাত্র হিসেবে তাঁর শিক্ষাজীবন শুরু করেন ১৯৪৬ সালের জানুয়ারী মাসে এই স্কুল থেকে মিডল স্কুল লিভিং সার্টিফিকেট পরীক্ষায় প্রথম বিভাগে পাশ করেন এবং বৃত্তি লাভ করেন তখন তাঁর বয়স ছিল ১২ বছর মাস এটি ছিল তত্কালীন আসামের প্রাদেশিক সরকারের অধীনে প্রথম পাবলিক পরীক্ষা এই স্কুল থেকে তিনিই প্রথম বৃত্তি লাভ করেন তাঁর এই কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের কারণে ১৯৪৬ সালের মাঝামাঝি সময়ে ভর্তি পরীক্ষা ছাড়াই মৌলভীবাজার গভর্ণমেন্ট হাই স্কুলে সপ্তম শ্রেণীতে ভর্তি হন তিনি ১৯৫০ সালে মৌলভীবাজার গভর্ণমেন্ট হাই স্কুল থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হন বৃত্তি পাওয়ার কারণে হাই স্কুলে তিনি বিনা বেতনে পড়াশুনা করেন এবং মাসে ১০ টাকা বৃত্তি পেতেন

কিন্তু এরপর . রংগলাল সেনের শিক্ষাজীবনে দেখা দেয় চরম অনিশ্চয়তা। কৃতিত্বের সাথে মাধ্যমিক পাস করলেও অর্থের অভাবে কলেজে পড়তে পারেননি তিনি। কারণ তাঁর বড় ভাইয়ের পড়ার খরচ, অসুস্থ কাকার চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন যৌথ পরিবারের ভরণ পোষণের খরচ তাঁর বাবার শিক্ষকতা থেকে প্রাপ্ত স্বল্প আয় দিয়ে মেটানো অসম্ভব হয়ে পড়ে। তাই রংগলাল সেনের কলেজে পড়ালেখার খরচ চালানো বাবার কাছে এক দুঃসাধ্য ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। ফলে তাঁর কলেজে পড়া আর হয়নি

কিন্তু রংগলাল সেনের মনে ছিল উচ্চ শিক্ষার অদম্য বাসনা। আর তাই তো তাঁর পড়ালেখা থেমে থাকেনি। তিনি পরবর্তীতে শিক্ষকতার পাশাপাশি কঠোর পরিশ্রম করে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক সম্মান শ্রেণীর প্রথম বর্ষে ভর্তি হন। এই বিষয়ে তিনি স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় যথাক্রমে ১৯৬২ এবং ১৯৬৩ সালে প্রথম স্থান অধিকার করেন। সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে তিনিই হলেন প্রথম ছাত্র যিনি এম.. পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণীতে প্রথম স্থান অধিকার করেন। এরপর বৃত্তি নিয়ে ইংল্যান্ডের সাসেক্স বিশ্ববিদ্যালয়ে যান। ইংল্যান্ডে তিনি ১৯৭৩-৭৭ সাল পর্যন্ত অবস্থান করেন। সেখানে তিনি আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সমাজ বিজ্ঞানী অধ্যাপক টি.বি. বটোমোর-এর অধীনে ১৯৭৪ সালে এম.. এবং ১৯৭৭ সালে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন

এভাবে সকল বাধাকে অতিক্রম করে কঠোর পরিশ্রম আর অধ্যবসায়ের মাধ্যমে তিনি তাঁর উচ্চ শিক্ষা সমাপ্ত করার বাসনা পূরণ করেন এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সবার শ্রদ্ধেয় এবং প্রিয় শিক্ষক হিসেবে এবং এদেশের একজন সমাজ চিন্তাবিদ হিসেবে দেশবাসীর কাছে পরিচিতি লাভ করেন অধ্যাপক ডঃ রংগলাল সেন বাঙালীর সমাজ ভাবনার এক অগ্রগামী চিন্তার ধারক। বাঙালীর সমাজ বিজ্ঞান চর্চার ইতিহাস খুব দীর্ঘ না হলেও এই স্বল্প সময়ে এদেশে সমাজ বিজ্ঞান চর্চা বিকাশে অধ্যাপক . রংগলাল সেন নিরলসভাবে কাজ করেছেন

১৯৩৩ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর সাবেক মৌলভীবাজার মহকুমার (বর্তমান জেলা) সদর থানার অন্তর্গত ত্রৈলোক্যবিজয় নামক গ্রামে এক শিক্ষিত মধ্যবিত্ত পরিবারে অধ্যাপক রংগলাল সেনের জন্ম। বাবা মৃত রমন চন্দ্র সেন, মা মৃত গিরিবালা সেন। ভাই বোন দশজন। বাল্যকালে দুই ভাই-দুই বোন টাইফয়েড রোগে মারা যান। বড় ভাই রোহিনী কান্ত সেন মনুমুখ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা শিক্ষক ছিলেন। চলবে....

Rationale
UploaderRaihan Ahamed